বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯

সাপ সম্পর্কে কিছু তথ্য যা আপনার মনে শিহরিত করে তুৃলবে [পর্ব - ০১]

সাপ সম্পর্কে কিছু তথ্য যা আপনার মনে শিহরিত করে তুৃলবে [পর্ব - ০১]
সাপ সম্পর্কে কিছু তথ্য যা আপনার মনে শিহরিত করে তুৃলবে [পর্ব - ০১]

সাপের কথা শুনলেই আমাদের শরীর ঘিমঘিম করে ওঠে, তাই না? এই সরিসৃপ সম্পর্কে আমরা খুব কমই জানি। নিচে সাপ সম্পর্কে কিছু তথ্য লিখেছি যেগুলো আপনার মনে শিহরিত করে তুৃলবে। চলুন শুরু করিঃ 

০১। যদি এমন হয় আপনি সাপ খুব ভয় পান, একদম’ই পছন্দ করেন না এবং তাদের কোনদিনই দেখতে চান না তাহলে আপনাকে আমি পরামর্শ দিব আপনার বাসস্থান পরিবর্তন করতে। আপনি নিউজিল্যান্ড, আইসল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, নিউফাউন্ডল্যান্ড, উত্তর মেরু অথবা দক্ষিণ মেরু’তে গিয়ে বসবাস করতে পারেন। কারণ এই জায়গাগুলোতে কোন সাপ নেই।
০২। যদিও সাপ সাধারণত একবার কামড়ায় কিন্তু Black Mamba সর্প দংশন বিষয়টাকে অন্য পর্যায়ে নিয়ে গেছে। কারন Black Mamba সাপ যখন কামড়াতে শুরু করে তখন তারা একবার না কামড়িয়ে লাগাতার ১২ বার কামড়ায়। যদিও তার একটি দংশনই তার শিকারের মৃত্যুর জন্য যথেষ্ট।

০৩। পৃথিবীতে আনুমানিক ৭২৫ প্রজাতির বিষধর সাপ রয়েছে যার মধ্যে ২৫০ প্রজাতির সাপের একটি দংশনই একজন মানুষের মুত্যুর জন্য যথেষ্ট।

০৪। আপনি জানেন কি, লক্ষ লক্ষ বছর আগের বড় বড় অজগর সাপগুলোর পিছনে পায়ের উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। বিবর্তনের পরিক্রমায় সেগুলো এখন আর অজগরের শরীরের অংশ নয়। বর্তমান যুগের অজগরগুলোর যদি পা থাকত তাহলে কত ভয়ংকরই না হতো। বাপরে…
০৫। আপনি হয় মৃত বিষধর সাপ বা সাপের কাটা মাথা দেখে নিজেকে নিরাপদ মনে করতে পারেন। কিন্তু বাস্তবতা কিন্তু ভিন্ন। কারণ কোন মৃত বিষধর সাপ বা তার কাটা মাথার দাঁতও যথেষ্ট পরিমাণ বিষ নিঃসরণ করতে পারে যেটা আপনার মুত্যুর কারণ হতে পারে। সুতরাং সাপ জীবিত অথবা মৃত যাই হউক না কেন তার দাঁত থেকে সাবধান।

০৬। বিশ্বাস করুন আর নাই করুন সাপের খাবার হজম করতে তিন থেকে পাঁচদিন পর্যন্ত সময় লাগে। খুব বড় সাপ যেমন অ্যানাকোন্ড‘র খাবার হজম করতে সপ্তাহখানিক সময় লাগে।

০৭। নকুল/নেউল/ বেজি পৃথিবী’র এমন এক বিরল প্রজাতি’র প্রাণী যারা সাপের বিষ প্রতিরোধ ক্ষমতা নিয়ে জন্মায়। 

০৮। সবচেয়ে বড় সাপের রেকর্ডধারী সাপটি হচ্ছে অ্যানাকোন্ডা। অ্যানাকোন্ডা’র ওজন ৫৯৫ পাউন্ড (২৭০ কেজি) পর্যন্ত হতে পারে এবং এটি লম্বা’য় ৩০ ফুট (৯ মিটার) পর্যন্ত হয়ে থাকে। একটি অ্যানাকোন্ডা নাস্তা’য় একটি পূর্ণ বয়স্ক জাগুয়ার খেয়ে ফেলতে পারে।

০৯। অন্যান্য প্রানীর ন্যায় সাপের দৃশ্যতঃ কোন কান নেই। কিন্তু তাই বলে সাপ শুনতে পায় না বললে ভুল হবে। শব্দ শোনার জন্য তাদের মাথার ভিতর বিশেষ ব্যবস্থা আছে যেগুলো তাদের চোয়ালে হাড়ের সাথে সংযুক্ত আছে। এছাড়া কিছু কিছু সাপ তাদের চামড়া আর পেশীর মাধ্যমে শব্দ তরঙ্গ সনাক্ত করতে পারে।
১০। সাপের যখন ক্ষুধা লাগে তখন তারা তাদের শিকারের আকার-আয়তন বা শক্তি নিয়ে চিন্তা করে না। আর সে কারনে তাদের পরবর্তীতে পস্তাতে হয়। উদাহরণ হিসেবে বলা যায় বছর পাঁচেক আগে ১৩ ফুট লম্বা একটি পায়থনকে দেখা যায় যে, সে ৬ ফুট লম্বা একটি Alligator ১১ ঘণ্টা পেঁচিয়ে রেখে নিস্তেজ করে গিলে ফেলে। কিন্তু Alligator’টি তখনও জীবিত ছিল এবং পরে সাপের পেট ছিড়ে বেড়িয়ে আসে।

আজ এই পর্যন্ত আগামী পর্বে আরও কিছু তথ্য নিয়ে লিখবো। ভাল থাকবেন। ধন্যবাদ!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only

Start typing and press Enter to search